Browser কি ? কিভাবে কাজ করে একটি ওয়েব ব্রাউজার


Browser কি ? (What Is Web Browser in Bengali); আজকের আর্টিকেলে আমরা এই বিষয়ে চর্চা করবো।

আসলে, আমরা যখনি নিজের মোবাইল বা কম্পিউটারে ইন্টারনেটের ব্যবহার করি, তখন একটি ওয়েব ব্রাউজার এর ব্যবহার এর ফলেই এটা সম্ভব হয়।

Internet browser এর ব্যবহার আমরা আমাদের laptop, mobile বা computer এর মাধ্যমে যেকোনো সময় বা যেকোনো জায়গা থেকে করতে পারি।

ব্রাউজার হলো একটি “software application” যেটাকে আবিষ্কার করা হয়েছিল ইন্টারনেট এর জন্যই।

মানে, www (world wide web) এর মধ্যে থাকা তথ্য গুলোকে খুঁজে পাওয়ার জন্য এই সফটওয়্যার এপ্লিকেশন নিয়ে আসা হয়েছে।

এমনিতে একটু মন দিয়ে দেখলেই আপনারা web browser এর অর্থ (meaning) বুঝে যেতে পারবেন।

  • ওয়েব মানে হলো “ইন্টারনেট”
  • ব্রাউজার মানে হলো “খোঁজা”

তাই, নামের মধ্যেই একটি ব্রাউজার মানে কি এর বিষয়ে বুঝা যেতে পারে।

ইন্টারনেটের দুনিয়াতে গিয়ে যেকোনো বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করা এবং সেগুলোকে ইউসার এর ডিভাইস এর মধ্যে ডিসপ্লে করার সফটওয়্যার এপ্লিকেশনটি হলো “ব্রাউজার“।

ওয়েব ব্রাউজার তৈরি করার একটাই উদ্দ্যেশ্য ছিল,

যেকোনো সাধারণ ব্যক্তি যাতে ইন্টারনেটের মধ্যে থাকা প্রত্যেক content গুলোকে খুঁজে পেতে পারে।

এখন, Browser কাকে বলে, এই বিষয়ে সাধারণ জ্ঞান আপনারা হয়তো অবশই পেয়ে গেছেন।

তবে, এখন হয়তো আপনাদের মনে কিছু অন্য প্রশ্ন চলে এসেছে।

যেমন,

  • ওয়েব ব্রাউজার কি ধরনের সফটওয়্যার ?
  • প্রথম web browser এর নাম কি ছিল ?
  • ইন্টারনেট ব্রাউজার কিভাবে কাজ করে ?
  • জনপ্রিয় কয়েকটি browser এর নাম কি কি ?

তবে, নিচে আমি আপনাদের ওয়েব ব্রাউজার এর সাথে জড়িত প্রত্যেকটি তথ্য দিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবো।

Web browser কি ? (Web browser definition in Bangla)

web browser কি
Details about web browser in Bangla.

যা আমি আগেই বলেছি, ইন্টারনেট ব্রাউজার হলো একটি এপ্লিকেশন, যেটার মাধ্যমে ইন্টারনেটে সক্রিয় তথ্য গুলোকে খোজ ও পাওয়া যেতে পারে।

মনে রাখবেন, একটি ব্রাউজার এবং একটি সার্চ ইঞ্জিন কিন্তু সম্পূর্ণ আলাদা।

অনেকেই, এই দুটোকে বুঝতে ভুল করে থাকে।

ব্রাউজার হলো একটি software application যেটাকে ব্যবহার করা হয় ইন্টারনেটে সক্রিয় website গুলোর ওয়েব সার্ভার এর সাথে সংযোগ স্থাপন করে,

ওয়েবসাইট গুলোর কনটেন্ট (content) বা ফাইল (file) গুলোকে search বা access করার ক্ষেত্রে।

যেকোনো ওয়েবসাইটের সার্ভার এর সাথে সংযোগ স্থাপন করে ওয়েবসাইটের file, style, design, web-pages, content ইত্যাদি দেখেনিতে আমাদের সাহায্য করে এই ব্রাউজার।

তবে,

সার্চ ইঞ্জিন হলো একটি ওয়েবসাইট যেটা অন্যান্য ওয়েবসাইট গুলোর লিংক আমাদের দেখিয়ে দেয়।

কিন্তু, সার্চ ইঞ্জিন ওয়েবসাইট ব্যবহার করার ক্ষেত্রেও কিন্তু আমাদের ব্যবহার করতে হবে “web browser”.

একটি ব্রাউজার এপ্লিকেশন এবং ইন্টারনেটের মধ্যে সরাসরি সম্পর্ক রয়েছে।

  • একটি ওয়েব ব্রাউজার ছাড়া ইন্টারনেটের ব্যবহার করা সম্ভব না।
  • ঠিক সেভাবেই, ইন্টারনেট ছাড়াও ব্রাউজার এর কোনো কাজ থাকছেনা।

Internet এর সেবা ব্যবহার করে যেকোনো ওয়েবসাইটে ভিসিট করার ক্ষেত্রে যেই প্রথম জিনিসটি আপনার লাগবে,

সেটা হলো, একটি “internet browser application“.

ওয়েব ব্রাউজার হলো একটি দরজার মতোই।

এমন একটি দরজা যেটা দিয়ে প্রবেশ করার পর ইন্টারনেটের জগতে যাওয়াটা সম্ভব।

বর্তমানে এতটা আকর্ষণীয় এবং সুন্দর সুন্দর ওয়েবসাইট গুলো রয়েছে।

মনে রাখবেন, একটি ওয়েব-পেজ এর মধ্যে কেবল সাধারণ টেক্সট এবং মাল্টিমিডিয়া ছাড়া কিছুই থাকেনা।

তবে, ওয়েব পেজ গুলোকে আকর্ষণীয় এবং সুন্দর বানানোর জন্য web developer রা কিছু CSS code এবং JavaScript ব্যবহার করে থাকে।

আর একটি ব্রাউজার, এই style sheet language গুলোকে সুন্দর ওয়েবসাইট ডিজাইনে রূপান্তর করে আমাদের computer বা mobile এর স্ক্রিনে দেখিয়ে দেয়।

সহজ ভাষায় ওয়েব ব্রাউজার কাকে বলে ?

সোজা ভাবে বললে, ওয়েব ব্রাউজার হলো একটি কম্পিউটার এপ্লিকেশন যেটাকে ব্যবহার করা হয় ইন্টারনেট ব্যবহারের উদ্দেশ্যে।

যখন আমরা ব্রাউজারে যেকোনো ওয়েবসাইটের URL address দিয়ে সার্চ করি,

তখন, ব্রাউজার সেই ওয়েবসাইটের সাথে জড়িত ওয়েব সার্ভার এর সাথে সংযুক্ত হয়ে যায়।

তারপর, ওয়েব সার্ভারে থাকা ওয়েবসাইটের প্রত্যেকটি কনটেন্ট, মাল্টিমিডিয়া, ডিজাইন, ইমেজ, স্টাইলিং কোড, স্ক্রিপ্ট ইত্যাদি গুলোকে পড়ে এবং মানুষে বুঝতে পাড়া সাধারণ ভাষাতে অনুবাদ করে।

এবার, অনুবাদ করা ওয়েব-পেজটি আমাদের কম্পিউটার বা মোবাইলের স্ক্রিনে দেখিয়ে দেওয়া হয়।

এবং, এই গুরুত্বপূর্ণ সফটওয়্যার এপ্লিকেশনটি হলো “ব্রাউজার”।

আশা করছি, browser কাকে বলে বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন।

সব থেকে প্রথম ওয়েব ব্রাউজার এর নাম কি ?

Tim Berners-Lee” ছিলেন একজন কম্পিউটার সাইন্টিস্ট যিনি “WorldWideWeb” নামের প্রথমটি ওয়েব ব্রাউজার তৈরি করেছিলেন।

এই ব্রাউজারটি তৈরি করা হয়েছিল, 1990 সালে।

পরে ব্রাউজারটির নাম WorldWideWeb থেকে বদলে Nexus করে দেওয়া হয়েছিল।

তবে, ১৯৯৪ সালে এই ব্রাউজার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।

ব্রাউজার এর ইতিহাস – (History of web browser)

আজকে যেই ওয়েব ব্রাউজার আমরা ব্যবহার করে ইন্টারনেটের জগতে থাকা বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিসিট করছি,

সেই ব্রাউজার এর কিন্তু একটি গুরুত্বপূর্ণ ইতিহাস অবশই রয়েছে।

  • 1990 – এই সালে প্রথম ওয়েব ব্রাউজার তৈরি করা হয়েছিল W3C director, “Tim Berners-Lee” দ্বারা। পরে, সেই প্রথম web browser এর নাম পাল্টে Nexus করে দেওয়া হলো। সেই সময়ের এটাই একমাত্রই ব্রাউজার ছিল যেটা ব্যবহার করে ইন্টারনেট এক্সেস করা সম্ভব ছিল।
  • 1992 – এই সালে Lynx নামের একটি text-based browser তৈরি করা হয়েছিল, যেটা graphics content দেখাতে পারতোনা। ব্রাউজারটি এখনো রয়েছে এবং সব থেকে পুরোনো ওয়েব ব্রাউজার হিসেবে একে বলা হয়।
  • 1993 – Mosaic নামের নতুন browser তৈরি করা হলো যেখানে text এর সাথে images display হয়ে থাকতো। এটাকে প্রথম গ্রাফিকাল ওয়েব ব্রাউজার বলা হতো। তাই, এই ইন্টারনেট ব্রাউজার অনেক পপুলার ছিল।
  • 1995 Internet explorer নামের প্রথম ব্রাউজার আসলো “Microsoft” এর তরফ থেকে।
  • 1996 – অনেক জনপ্রিয় ব্রাউজার opera একটি research project হিসেবে ১৯৯৪ সালে শুরু হয়েছিল। প্রায় ২ বছর পর সাধারণ লোকেদের ব্যবহারের ক্ষেত্রে উপলব্ধ করা হলো।
  • 2003 –  Apple দ্বারা নিয়ে আসা হলো Safari browse যেটা সেই সময় কেবল Macintosh computers গুলোর জন্য ছিল।
  • 2004 – এই বছরে বর্তমানের অনেক জনপ্রিয় ব্রাউজার Mozilla Firefox browser.
  • 2007 – Apple নিয়ে আসে Mobile Safari নামের তার mobile web browser.
  • 2008 – Google এর chrome browser এই ব্রাউজার মার্কেটে শামিল হলো এবং অনেক তাড়াতাড়ি অনেক জনপ্রিয় হয়ে দাঁড়ালো।
  • 2015 – Microsoft এর উন্নত এবং আধুনিক browser আসলো “Microsoft Edge” নামে।

তাহলে দেখলেন তো, সময়ে সময়ে এই ওয়েব ব্রাউজার এর মার্কেট কতটা বড় হতে থাকলো।

এখন আর আগের মতো সাধারণ ইন্টারনেট ব্রাউজার নেই।

এখন প্রত্যেকটি browser প্রচুর fast, advanced এবং attractive.

Browser কিভাবে কাজ করে ?

Browser হলো একটি software application যার কাজ হলো WWW (world wide web) এর মধ্যে থাকা কনটেন্ট যেমন videos, images, text, files ইত্যাদি গুলোকে খোজ, সংগ্রহ করা এবং ইউসার এর মোবাইল বা কম্পিউটার স্ক্রিনে ডিসপ্লে করা।

তবে, এই browser application এই কাজ করে কিভাবে ?

Browser হলো একটি client যেটাকে একটি computer device এর মাধ্যমে ব্যবহার করা হয়।

যখনি আমরা browser open করে সেখানে কোনো ওয়েবসাইট এর URL address / domain দিয়ে থাকি,

তখন, ব্রাউজার সেই URL web address এর সাথে সংযুক্ত web server এর থেকে information পাওয়ার জন্য request করে।

এর পর, web server থেকে information গুলোকে web browser কে প্রদান করা হয়।

সোজা ভাবে বললে, browser এর অনুরোধ শিকার করে web server তাকে information সংগ্রহ করার অনুমতি দিয়ে থাকে।

এবং, এর বিপরীতে সার্ভার থেকে সংগ্রহ করা ওয়েবসাইটের প্রত্যেকটি কনটেন্ট, ব্রাউজার আমাদের মোবাইল বা কম্পিউটারে ডিসপ্লে করে।

মনে রাখবেন,

  • Web server হলো সেই server বা computer যেখানে যেকোনো ওয়েবসাইটের file এবং অন্যান্য content গুলো থাকে।
  • প্রত্যেকটি web server এর একটি unique IP address রয়েছে যেটার মাধ্যমে সেই server এর file / content গুলোকে access করা সম্ভব।
  • প্রত্যেকটি ওয়েবসাইটের Domain / URL address, সেই ওয়েবসাইটের web server এর আইপি এড্রেস (IP address) এর সাথে সংযুক্ত থাকে।
  • ফলে, domain / URL address এর মাধ্যমে সেই ওয়েবসাইটের file / content গুলো access করা যায়।

জনপ্রিয় কয়েকটি ব্রাউজার (browser) এর নাম কি কি ?

চলুন নিচে আমরা কিছু জনপ্রিয় ব্রাউজার এর নাম গুলো জেনেনেই।

  • Google chrome browser 
  • Internet explorer
  • Microsoft Edge  
  • Mozilla Firefox
  • Safari browser
  • Opera browser
  • Lynx (Linux PC)
  • UC browser 

ওপরে দেওয়া web browser গুলোর বেশিরভাগ আপনারা নিজের মোবাইল এবং কম্পিউটার দুটোতেই ব্যবহার করতে পারবেন।

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, আজকে আমরা জানলাম ব্রাউজার মানে কি (What is a web browser), ওয়েব ব্রাউজার কি ধরনের সফটওয়্যার, ব্রাউজার এর ইতিহাস এবং অন্যান্য কিছু তথ্য।

যদি আজকের আমাদের আর্টিকেল “browser বলতে কি বুঝায়“, আপনাদের ভালো লেগে থাকে,

তাহলে আর্টিকেলটি শেয়ার অবশই করবেন।

তাছাড়া, যদি আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকে, তাহলে নিচে কমেন্ট করে অবশই জানিয়ে দিবেন।

অবশই পড়ুন

 



Source link

admin

Professional Graphic Designer

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: