গার্মেন্ট শিল্পে করোনা সংকট: কাল মন্ত্রিসভার বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

COVID-19

Crisis in Garment Manufacturers

গার্মেন্টস বন্ধের সিদ্ধান্ত নেবেন মালিকরা, সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।
সোমবার বিকালে করোনাভাইরাস নিয়ে সচিবালয়ে জরুরি ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।
তৈরি পোশাক কারখানা খোলা থাকবে কিনা সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব বলেন, ‘আমাদের স্বাস্থ্য প্রফেশনালস যারা আছেন তাদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। গার্মেন্টে যারা কাজ করেন তাদের সতর্কভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এখানে একটা জিনিস আছে, কেউ যদি ইনফেক্টেড হয়, তাহলে সে আর অন্য ফ্যাক্টরিতে যাচ্ছে না। ধরেন ৫-৬ জন ইনফেক্টেড হয়ে যদি ছুটিতে যায় তাহলে ছড়ানোর সম্ভাবনা বেশি। গার্মেন্ট মালিকরা স্যানিটাইজার, হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রেখেছেন। গ্লাভস ও মাস্ক ব্যবহার করেই কর্মীরা কাজ করে যাচ্ছেন। মালিকরা সিদ্ধান্ত নেবেন তারা কী করবেন।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে মুখ্য সচিব বলেন, ‘গার্মেন্টস কর্মীদের আমরা পিপিই ও মাস্ক তৈরির কাজে ব্যবহার করছি। তারা আমাদের প্রচুর সহায়তা করছে। রোববার চট্টগ্রাম থেকে ১০ হাজার মাস্ক নিয়েছি। আরও ৯০ হাজার পাচ্ছি। এভাবে বিভিন্ন এলাকা থেকে আমরা মাস্ক নিচ্ছি।’
গত ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে মহামারী আকারে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। এ ভাইরাসে সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১৪ হাজারেরও বেশি মানুষ। এ ছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন প্রায় ৯৯ হাজার মানুষ।
বাংলাদেশে এই পর্যন্ত ৩ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩ জন।

admin

Professional Graphic Designer

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: